হায়রে সাংসদ! হায়রে মুক্তিযোদ্ধা!

রবিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০১৮ | ১২:০১ পূর্বাহ্ণ | 1043 বার

হায়রে সাংসদ! হায়রে মুক্তিযোদ্ধা!
মোহাম্মদ ঈমাম হোসেইন:

দেশের রাজনীতিতে কতটা যে অধপতন ঘটেছে তার প্রমান পাওয়া যাবে সাবেক সাংসদ এবং মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউসুফের বর্তমান অবস্থা দেখে। শ্রমজীবি মেহনতী মানুষের জন্য শোষনহীন সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলার স্বপ্ন নিয়ে একদিন রাজনীতিতে যুক্ত হয়ে ছিলেন মোহাম্মদ ইউসুফ। শ্রমিক নেতা হিসাবে নয়, ধীরে ধীরে পরিনত হয়েছিলেন চট্টগ্রামের শ্রমজীবি মেহনতী মানুষের অবিসংবাধিত নেতা হিসাবে। জীবনবাজি রেখে অংশ নিয়ে ছিলেন মহান মুক্তিযুদ্ধে। ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির নেতা। ঘুরে বেরিয়েছেন রাঙ্গুনিয়াসহ চট্টগ্রামের এক প্রান্ত থেকে অন্য অন্য প্রান্তে।
আজীবন এই সংগ্রামী নেতা ১৯৯১ সালে ৫ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)র প্রার্থী হিসাবে নৌকা প্রতীকে বিজয় অর্জনের মধ্য দিয়ে ৭৫’র পর রাঙ্গুনিয়ায় প্রথমবারের মতো মুক্তিযুদ্ধের পতাকা উড়িয়েছেন। ধ্বস নামিয়ে ছিলেন মানবতা বিরোধী অপরাধে ফাঁসী হওয়া সাকা চৌধুরী সাম্রাজ্যে।
রাজনৈতিক কারনে সিপিবি’ র অনান্য নেতাদের সাথে তিনি যোগ দিয়ে ছিলেন আওয়ামীলীগে। সাংসদ হিসাবে শুল্কমুক্ত কৌটায় গাড়ি নেয়া, গুলশান-বনানীতে প্লট কিংবা ব্যবসা-বানিজ্যের কমিশন নেয়ার চিন্তা কখনো তিনি করেনি। থেকেছেন আজীবন সংগ্রামী হিসাবে। আর হয়ত এ কারনে আজ অর্থাভাবে ধুকে ধুকে মরতে হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক সাংসদ, রাজনীতিক মোহাম্মদ ইউসুফকে। এখন আর তার খবর কেউ রাখেন না। বিভিন্ন রোগ ব্যাধী নিয়ে অত্যন্ত কষ্টে জীবন যাপন করছেন সাবেক এই সাংসদ। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেনা। বিনা চিকিৎসায় ধুকে ধুকে মরছেন মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক সাংসদ এই রাজনীতিক। মোহাম্মদ ইউসুফের মত একজন সৎ, দেশ প্রেমিক রাজনীতিক, সাংসদ, মুক্তিযোদ্ধার যখন এই অবস্থা তখন প্রশ্ন জাগে হায়রে রাজনীতি? হায়রে সাংসদ? হায়রে মুক্তিযোদ্ধা? এই বুঝি একটি সভ্য দেশের সম্মাননা ! 
এই মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক সংসদ সদস্যের প্রতি কি রাষ্ট্রের কোন দায়িত্ব নেই?

Image may contain: 1 person
-সূত্র: ‘মোঃ টি ভূঁইয়া’ ফেসবুক আইডি থেকে নেওয়া।
সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে মুজিব সেনাকে বানানো হচ্ছে জিয়ার সৈনিক!

২০১১-২০১৬ | বিবিসিজার্নাল.ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Development by: webnewsdesign.com