শার্শায় বাণিজ্যিক ভাবে শুরু হয়েছে (সবুজ ফুলকপি) ব্রোকলির চাষ

সোমবার, ২৮ জানুয়ারি ২০১৯ | ১২:২৯ অপরাহ্ণ |

শার্শায় বাণিজ্যিক ভাবে শুরু হয়েছে (সবুজ ফুলকপি) ব্রোকলির চাষ

যশোরের শার্শা উপজেলায় এ বছর বানিজ্যিকভাবে চাষ শুরু হয়েছে ব্রোকলি (সবুজ ফুলকপি)। ব্রোকলি একটি ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন এ সমৃদ্ধ উচ্চ পুষ্টিগুন সম্পন্ন কীটনাশকমুক্ত সবজি হওয়ায় স্থানীয় কৃষি বিভাগ সবুজ ফুলকপি খ্যাত এ সবজিটি চাষের জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছেন। আর এ সবজিটি চাষ করে কৃষকও বেশ লাভবান হচ্ছেন।
স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানায়, ব্রোকলি যে শুধুই স্বাদে, বর্ণে ও গন্ধে অনন্য তা নয়, ব্রোকলির রয়েছে বহুবিধ পুষ্টি উপাদান যা আমাদের শরীর স্বাস্থ্য কে ভালো রাখতে নানা ভাবে সহায়তা করে। শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতায় এই ব্রোকলির জুড়ি মেলা ভার। সাধারনত অন্যান্য সবজিতে ব্রোকলির মত এতো পুষ্টিগুণ পরিলক্ষিত হয় না আর এজন্যই এর কদরও দিন দিন বেড়েই চলেছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ব্রোকলি দৃষ্টি শক্তি ঠিক রাখতে সহায়তা করে। অন্যান্য পুষ্টি উপাদানের পাশাপাশি ব্রোকলিতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ থাকায় রাতকানা রোগ প্রতিরোধ করে এবং দৃষ্টি শক্তি ঠিক রাখে। এছাড়া এতে ক্যালরির পরিমান অনেক কম থাকে বলে অতিরিক্ত ওজন নিয়ন্ত্রণে বিশেষ ভূমিকা রাখে।
ব্রোকলি মানব দেহের গ¬ুকোসিনোলেট নামক অর্গানিক উপাদানের মাত্রা বাড়িয়ে লিভারের দূষিত পদার্থ নিষ্কাশন করে ফলে লিভার থাকে রোগ মুক্ত। সেই সাথে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন কে-তে ভরপুর ব্রোকলি হাড়ের গঠন শক্তিশালী করে ও বিভিন্ন ধরনের হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে।
শুধু তাই নয় ব্রোকলি প্রাকৃতিক আশ বা ফাইবার সমৃদ্ধ বলে দেহের পরিপাক তন্ত্র ঠিক রাখে, খাদ্য সঠিক ভাবে হজম করতে সাহায্য করে ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে । এমনকি এটি নিম্ন রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখতে সহায়তা করে।
অন্যদিকে হৃদরোগ প্রতিরোধে ব্রোকলি বা সবুজ ফুলকপি অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করে । এর উপকারী পুষ্টি উপাদান ম্যাগনেশিয়াম আর ক্যালশিয়াম রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং মানব দেহের ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল এর মাত্রা নিয়ন্ত্রনে রাখে । উপরন্তু ব্রোকলিতে বিদ্যমান ভিটামিন বি ৬ হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেকাংশে কমিয়ে আনে।
এছাড়াও এই সবুজ ফুলকপি ব্রোকলিতে বিদ্যমান আর,ডি,এ নামক এন্টি অক্সিডেন্ট দেহের যেকোন ধরনের ক্ষত দ্রæত সারিয়ে তুলে এবং ফ্রি র‌্যাডিকেলের বিপরীতে কাজ করে। এবং অ্যালার্জি প্রতিরোধে উপকারী উপাদান ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড যা প্রদাহ বিরোধী হিসাবে কাজ করে এবং ক্যাম্ফেরল প্রায় সকল ধরনের অ্যালার্জেটিক উপাদান হ্রাস করে।
এ ব্যাপারে উপজেলার গ্রামের ব্রোকলি চাষি জানান, এ সবজিটি চারা তৈরি থেকে মাত্র ৯০ দিনে উত্তোলন যোগ্য এবং রোগ বালাই ও পোকামাকড়ের আক্রমন কম হয় এবং এটি কীটনাশকমুক্ত । এটির পরিচর্যা ও উৎপাদন খরচ বিঘা প্রতি জায়গা ভেদে ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা । যা বিক্রি করে আয় হয়ে থাকে ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা। কম সময়ে লাভজনক এ সবজিতে বিঘা প্রতি ৩০ হাজার টাকা লাভ হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
অন্যদিকে পাইকারী ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেন, শাহিন আলম ও সোলাইমান জানান, গত বছর এ সবজিটি নতুন হওয়ায় তিনি বিক্রি করতে হিমসিম খেলেও এবছর স্বাদযুক্ত এ সবজির চাহিদা বাড়ায় বিক্রি করতে সমস্যা হচ্ছে না। পাশাপাশি এটি লাভজনক হওয়ায় কৃষকরাও এটি চায়ে আগ্রহী হয়ে পড়ছেন।
এদিকে স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানান, উচ্চ মূল্যের এ পুষ্টিগুন সমৃদ্ধ সবজি ক্যান্সার প্রতিরোধক এন্টি অক্সিডেন্ট থাকায় ভোক্তা পর্যায়ে এর চাহিদা বাড়ায় এবছর বিক্রি বেড়েছে।
শার্শা উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সৌতম কুমার শীল জানান, তার প্রচেষ্টায় প্রথম বছর উচ্চ মূল্যের ও পুষ্টিগুন সম্পন্ন সবুজ ফুলকপি খ্যাত ব্রোকলি পরিক্ষামূলক ভাবে চাষের পর এ বছর ব্যাপক প্রচারনার কারনে ভোক্তারা চাহিদা করায় বিক্রি বেড়েছে। সেসাথে কৃষি বিভাগ কৃষকদের বাজারজাত করন সহ সবরকম সহায়তা দেয়ায় আগামী বছর এর চাষ বাড়ানোর লক্ষমাত্র নির্ধারণ করা হবে। উল্লেখ্যঃ যশোরের শার্শা উপজেলায় গত বছর পরিক্ষামুলক চাষের পর এ বছর ৫ বিঘা জমিতে ব্রোকলি চাষ করা হয়েছে।

২০১১-২০১৬ | বিবিসিজার্নাল.ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Development by: webnewsdesign.com