ব্রেকিং নিউজ

x

যেভাবে চিনবেন অটিজম শিশু

রবিবার, ০১ এপ্রিল ২০১৮ | ৭:৩০ অপরাহ্ণ | 50 বার

যেভাবে চিনবেন অটিজম শিশু
অটিজম শিশু

শিশুদের ক্ষেত্রে অটিজম প্রচলিত একটি সমস্যা। কিন্তু অনেক বাবা-মা বুঝতে পারেন না শিশুর অটিজম সমস্যা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় যে সব নারী ও পুরুষরা প্রথম বাবা-মা হন তাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যাটা বেশি হয়ে থাকে।

অটিজমের সমস্যা বেশি বুঝা যায় ১০ মাস বয়সের পর থেকে। এই সময়ে আপনার সন্তান যদি অস্বাভাবিক আচরণ করে তবে বুঝতে হবে শিশুর আচারণগত সমস্যা রয়েছে।

বিশেষ করে আপনার শিশু যদি দেরিতে কথা বলে, কম হাসে এছাড়া একা থাকতে পছন্দ করে। তবে বুঝতে হবে শিশুটির আচরণগত সমস্যা। এক্ষত্রে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

অটিজম কী

শিশুদের অটিজম বলতে যেটা বুঝায়, একটি শিশুর কথা দেরি করে আসার সঙ্গে সঙ্গে তার কিছু আচরণগত সমস্যা। সে সামাজিকভাবে মেলামেশা করতে পারে না। শুধু কথা যদি না বলে এটি অটিজমের মধ্যে পড়ে না। তার সঙ্গে তার সামাজিকতা, অন্য একজন মানুষের সঙ্গে বা তার সমবয়সী মানুষের সঙ্গে মেশার বিষয়টিও বুঝাবে। সেটার মধ্যে গলদ থাকলেই বুঝতে হবে অটিজম আছে।

আসুন জেনে নেই কিভাবে চিনবেন অটিজম শিশু।

দেরিতে কথা বলা

শিশুরা সাধারণ ১০ মাস বয়স থেকে কথা বলতে শুরু করে।অভিভাবকদের যে বিষয়টি সবচেয়ে বেশি খেয়াল রাখতে হবে সেটি হচ্ছে আপনার শিশু ১০ মাস বয়সের পর থেকে কথা বলছে কি না।যদি আপনি কোনো সমস্যা মনে করেন তবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। চোখে দিকে না তাকানো

শিশুরা সাধারণ চোখে দিকে তাকিয়ে কথা বলবে।এছাড়া কথা বলার সময় কোল থেকেই আপনার বিভিন্ন অঙ্গ -প্রতঙ্গ স্পর্শ করা চেষ্টা করবে। যদি আপনার শিশু চোখে চোখ রেখে কথা না বলে তবে বুঝতে হবে সমস্যা রয়েছে। এটি তার স্বাভাবিক আচরণ না।

একা থাকতে পছন্দ

অটিজম শিশুদের আরেকটি আচরণগত সমস্যা হলো তার একা থাকতে পছন্দ করে।এ ধরনের শিশুরা কারো সঙ্গে মিশতে চায় না।এমনি কারো সঙ্গে খেলতেও পছন্দ করে না।

হাসতে চায় না

আপনার শিশু সুস্থভাবে বেড়ে উঠছে কি না তা বুঝতে পারবেন তার হাসি দেখে।অটিজম শিশুরা খুব একটা হাসতে চায় না।এছাড়া তাদের হাঁটা চলা স্বাভাবিক শিশুদের মত হয় না।তারা কখনোই মুক্ত মনে শব্দ করে যে হাসে না।

খেলাধুলা

অটিজম শিশুরা একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত খেলা করে। এছাড়া এসব শিশুরা একা খেলতে পছন্দ করে। তারা কারো সঙ্গে খেলতে বা সময় দিতে পছন্দ করে না। এমনকি বাবা-মার সঙ্গেও না।তবে আপনি শিশুর সাথে খেলা করতে পারেন। বসে বসে তার সঙ্গে কথা আদান-প্রদান করেন।

ডা.বিকাশ চন্দ্র পাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ)

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

নোয়াখালীর সোনাইমুড়িতে দূধর্ষ ডাকাতি সংঘঠিত

২০১১-২০১৬ | বিবিসিজার্নাল.ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Development by: webnewsdesign.com