বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল ৪ বরযাত্রীর

মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ২০১৮ | ১:০৩ অপরাহ্ণ |

বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল ৪ বরযাত্রীর

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে নববধূকে নিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন বর। গন্তব্যের কাছাকাছি এসে সেই আনন্দযাত্রা রূপ নেয় বিষাদে। মিতালী পরিবহন নামে একটি বাস বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দিলে শিশুসহ চার বরযাত্রী মারা যান।

মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের সোনাইমুড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ১৮ জন। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- সজল (২০), স্নিগ্ধা (৫), প্রান্তিকা (৬) ও বৃষ্টি (৬)।

নরসিংদী ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান সমকালকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে ঢাকা থেকে সিলেটগামী মিতালী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস সোনাইমুড়ির টেক এলাকায় পৌঁছালে বাসটির চাকা ফেটে যায়। এ সময় বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারালে রায়পুরা থেকে বর-কনেকে নিয়ে বরযাত্রীবাহী চাঁদপুরের মতলবগামী একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসের ৩ যাত্রী নিহত যান। বর-কনেসহ আহত হন আরও ১৮ যাত্রী। আহতদের মধ্যে মাইক্রোবাস ছাড়াও কয়েকজন মিতালী পরিবহনের যাত্রী। এ ঘটনায় মাইক্রোবাসটি ধুমড়ে-মুচড়ে যায়। দুর্ঘটনার পর পর আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে পাঠালে সেখানে আরও একজনের মৃত্যু হয়। আহতদের অবস্থার অবনতি হলে বর-কনেসহ ১৭ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) ও হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, দুর্ঘটনায় আক্রান্ত বাস ও মাইক্রোবাসটিকে জব্দ করা হয়েছে। তবে বাসের চালক পালিয়ে গেছেন।

নোয়াখালীতে নিখোঁজের চারদিন পর কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার, সহপাঠি আটক

২০১১-২০১৬ | বিবিসিজার্নাল.ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Development by: webnewsdesign.com